Home » 2011 » January » 03
http://kawranbazaar.com/20
Views: 432 | Added by: zazafee | Date: 2011-01-03 | Comments (0)

মুছে যাওয়া ফাইল ফিরিয়ে আনুন

Views: 470 | Added by: zazafee | Date: 2011-01-03 | Comments (0)

একটি নতুন কিবতা লিখেবা বলে কতনা অপেক্ষায় থাকি
কবিতা আমার হাতের কলেম এসে ধরা দেয়না।
আমি কি তবে ফুরিয়ে গেলাম?
আমার আমিকে হয়েতা আর আমিতে ফিরে পাবনা।
যে চলে যেতে চায় সে চলে যাক
নিরন্ন এই আমি না হয় আবার হবো হিমাচল
আবার হবো শঙ্খনদীর ঢেউ।
Views: 501 | Added by: zazafee | Date: 2011-01-03 | Comments (0)

যাকাত না দেয়ার পরকালীন শাস্তি ঃ
যাকাত না দেয়ার পরকালীন শাস্তি যে কত ভয়ঙ্কর হতে পারে সে বিষয়ে কুরআনের একটি আয়াত এবং একটি হাদীস উল্লেখ করাই যথেষ্ট মনে করছি।
আলাহ তায়ালা বলেন ঃ "যারা সোনা-রুপা (অর্থ-সম্পদ) পুঞ্জিভূত করে রাখে এবং তা আল্লাহর পথে খরচ করে না, তাদের যন্ত্রনাদায়ক শাস্তির সু-সংবাদ দাও! এমন একদিন আসবে যেদিন সেসব সোনা রূপা জাহান্নামের আগুনে উত্তপ্ত করা হবে, তারপর তা দিয়ে তাদের মুখ-মন্ডল, পার্শ্বদেশ ও পৃষ্ঠদেশে দাগ দেয়া হবে এবং বলা হবে, এই হলো তোমাদের সেসব অর্থ-সম্পদ যা নিজেদের জন্য জমা করে রেখেছিলে। অতএব এখন জমা করে রাখা সম্পদের স্বাদ গ্রহণ করো।" সূরা তাওবা-৩৪-৩৫

হাদীসটি হলো-"হযরত আবু হুরাইরা (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন: রাসূলে করীম (সাঃ) বলেছেন- আল্লাহ যাকে অর্থ-সম্পদ দিয়েছেন, সে যদি সেই অর্থ-সম্পদের যাকাত প্রদান না করে, তবে তা কিয়ামতের দিন একটি বিষধর অজগরের রূপ ধারণ করবে। যার দু'চোখের উপর দু'টি কালো চিহ্ন থাকবে। সে বলবে-আমিই তোমার অর্থ-সম্পদ, আমিই তোমার সঞ্চয়। এতটুকু বলার পর নবী করীম ( ... Read more »
Views: 489 | Added by: zazafee | Date: 2011-01-03 | Comments (0)

যারা যাকাত দিবে ঃ

সালাত ফরজ হবার জন্যে যেমন কিছু শর্ত আছে, তেমনি যাকাত ফরজ হবার জন্যেও কিছু শর্ত আছে। শরীয়াহ বিশেষজ্ঞদের মতে এমন প্রত্যেক ব্যক্তিরই উপর যাকাত ফরজ, যাদের মধ্যে নিম্নোক্ত শর্তাবলী পাওয়া যায়-

১.মুসলিম
২. স্বাধীন
৩. আকেল হওয়া
৪. বালেগ হওয়া
৫. নিসাব পরিমান সম্পদ থাকা
৬. পূর্ণাঙ্গ মালিকানা থাকা
৭. এক বছর অতিবাহিত হওয়া

যারা যাকাত পাবে ঃ


আল্লাহ রাব্বুল আলামীন যাকাত কাদের প্রাপ্ত অর্থাৎ কাদের মধ্যে যাকাতের অর্থ বন্টন করে দিতে হবে সে সম্পর্কে সু-স্পষ্ট নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন-"এসব সদাকাতো (যাকাত) কেবল নিস্ব, অভাবগ্রস্থ ও তৎসংশ্লিষ্ট কর্মচারীদের জন্য, যাদের চিত্ত আকর্ষণ করা হয় তাদের জন্য, ঋণ ভারাক্রান্তদের, আল্লাহর পথে ও মুসাফিরদের জন্য। এটা আল্লাহর বিধান। আল্লাহ সর্বজ্ঞ, প্রজ্ঞাময়।" সূরা তাওবা-৬০


উপরের আয়াত হতে আটটি উদ্দেশ্যে যাকাতের অর্থ ব্যবহারের জন্যে সু-স্পষ্টভাবে নির্দেশ পাওয়া যায়।

সেগুলি ... Read more »
Views: 487 | Added by: zazafee | Date: 2011-01-03 | Comments (0)

দারিদ্র্য বিমোচনে যাকাতের ভূমিকাঃ
যাকাতের অন্যতম অর্থনৈতিক ও সামাজিক উদ্দেশ্য হচ্ছে ইসলামী সমাজ হতে দরিদ্রতা দূর করা। দারিদ্র্যতা মানবতার পয়লা নম্বরের দুশমন। ক্ষেত্র বিশেষে তা কুফরী পর্যন্ত নিয়ে যেতে পারে। যে কোন সমাজ ও দেশের এটা সবচেয়ে জটিল ও তীব্র সমস্যা। সমাজে হতাশা ও বঞ্চনার অনুভূতি সৃষ্টি হয় দারিদ্র্যতার ফলে। পরিনামে দেখা দেয় সামাজিক সংঘাত। বহু সময়ে রাজনৈতিক অভ্যুত্থান পর্যন্ত ঘটে। অধিকাংশ অপরাধই সচরাচর ঘটে দরিদ্রতার জন্য। এ সমস্যাগুলির প্রতিবিধান করার জন্যে যাকাত ইসলামের অন্যতম মুখ্য হাতিয়ার। যে আট শ্র্রেণীর লোকের কথা পূর্বেই উলেখ করা হয়েছে, যাকাত লাভের ফলে তাদের দিনগুলি আনন্দ ও নিরাপত্তার হতে পারে। যাকাত যথাযথভাবে আদায় ও পরিকল্পিতভাবে ব্যবহার করা হলে আজকের দিনেও এর মাধ্যমে দরিদ্রতা দূর করা সম্ভব।
কিন্তু দূর্ভাগ্যের বিষয়, এক সময়ে যে যাকাত পদ্ধতি চালু ও প্রতিষ্ঠিত হওয়ার কারনে জাযিরাতুল আরবে যাকাত গ্রাহকের সন্ধান পাওয়া ছিল দূর্লভ, আজও সেই যাকাত ব্যবস্থা চালু থাকা সত্ত্বেও মুসলিম বিশ্বে দুঃস্থ, অভাবী ও নিস্ব লোকের সংখ্যা ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে। এর ম ... Read more »
Views: 641 | Added by: zazafee | Date: 2011-01-03 | Comments (0)

৪. ঋণগ্রস্থ কৃষকদের জমি অবমুক্তকরণঃ

বাংলাদেশের পলী এলাকায় এমন গ্রামের সংখ্যাই বেশি যেখানে বর্তমান ভূমিহীন কৃষকদের অনেকেই কয়েক বছর পূর্বেও ছিল মোটামোটি স্বচ্ছল এবং কৃষি জমির মালিক। কিন্তু পারিবারিক কোন বড় ধরনের ব্যয় নির্বাহের জন্যে ব্যাংক বা গ্রামীন মহাজনের নিকট হতে ঋণ নেয়ার ফলে তার শেষ সম্বল চাষের জমিটুকু বেহাত হয়ে গেছে। মেয়ের বিয়ে, বৌয়ের চিকিৎসা বা প্রাকৃতিক দূর্বিপাকের ফলে শস্যহানীর ক্ষতিপুরনের জন্যে শেষ সম্বল দুই বা তিন বিঘা চাষের জমি তারা বন্ধক রাখে। এসব ঋণ গ্রহীতাদের অধিকাংশই এ ঋণ আর শুধতে পারে না। ফলে তাদের জমি চলে যায় মহাজনদের হাতে। এর প্রতিবিধানের জন্যে যাকাতের অর্থ হতেই এদের সাহায্য করা যায়। যদি প্রতি ইউনিয়নে বছরে পাঁচ জনকে গড়ে ৫,০০০টাকা করে সাহায্য করা যায় তাহলে এতে বার্ষিক ব্যয় হবে ৪৪কোটি ৫১লক্ষ টাকা।



৫. দরিদ্র শিশুদের পুষ্টি সাহায্যঃ


বাংলাদেশের গ্রামাঞ্চলে তো বটেই, শহরেও বস্তি এলাকাতে অগনিত শিশু নিদারুন পুষ্টিহীনতার শিকার। ফলে এরা যৌবনেই নানা দূরারোগ্য ব্যধিতে আক ... Read more »
Views: 790 | Added by: zazafee | Date: 2011-01-03 | Comments (0)